[huge_it_slider id='2']

কালাই মহিলা ডিগ্রি কলেজ এ আপনাদের স্বাগতম

কালাই মহিলা ডিগ্রি কলেজ সম্পর্কে কিছু কথা

কালাই মহিলা ডিগ্রি কলেজ একটি ঐতিহ্যবাহী কলেজ। এটি ১৯৯৫ ইং সালে স্থাপিত হয়। ২.৬৯ একর জমির উপরে বৃহৎ পরিসরে কলেজটি প্রতিষ্ঠিত। এখানকার লোকেশন, প্রাকৃতিক পরিবেশ, লেখাপড়ার মান, পরীক্ষার ফলাফল খুবই সন্তোষজনক। এখানে শুধু মেধা ঔ মননশীলতার চর্চা করা হয়। অনেক চড়াই-উৎরাই পেরিয়ে কলেজটি আজ এই অবস্থানে এসে পৌছেছে । মাননীয় সাবেক সংসদ সদস্য,জয়পুরহাট -২, জনাব আবু ইউসুফ মোঃ খলিলুর রহমান অত্র এলকার কিছু শুভাকাঙ্খী ব্যক্তি ও দানশীল ব্যক্তি নিয়ে কালাই মহিলা ডিগ্রি কলেজটি প্রতিষ্ঠান করেন। তিলে তিলে তিনি কলেজটি গড়ে তুলেছেন। কলেজটির উন্নয়নের জন্য তিনি নিরলস প্রচেষ্ঠা চালিয়েছেন। এ জন্য আমরা তার প্রতি কৃতজ্ঞ। যারা ডোনেট করেছেন, তাদেরকেও জানাই সশ্রদ্ধ সালাম ও কৃতজ্ঞতা। যেখানে, যখনই কলেজটির অবতারণা করিনা কেন একটি নাম উচ্চ কন্ঠে উচ্চারিত হবে। আর সেটি হলো জনাব মোঃ নাজিম উদ্দীন। যিনি দক্ষতার সাথে কলেজটির অধ্যক্ষের দায়িত্ব  পালন করেছেন প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে। কালাই মহিলা ডিগ্রি কলেজ এবং অধ্যক্ষ মোঃ নাজিম উদ্দীন- এই দু’য়ে মিলে রচিত একটি ইতিহাস। কলেজটির অগ্রগতিতে নিবেদিত ব্যক্তিদের মধ্যে তিনি অন্যতম। তিনি কলেজটির জন্য যে ত্যাগ ও তিতিক্ষার মখোমুখী হয়েছেন, তা আর বলার অপেক্ষা রাখেনা। কলেজটি এখন ডিগ্রি পর্যায়ে উন্নীত। অদূর ভতিষ্যতে এখানে অনার্স কোর্স খোলার সম্ভাবনা প্রত্যাশিত। এখানকার শিক্ষকগণ পাঠদানে খুবই আন্তরিক। যার কারণে জেলার সেরা কলেজগুলোতে বারবারই কলেজটি স্থান লাভ করে চলেছে।

জাতীয় পর্যায়ে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিসহ স্বনামধন্য ব্যক্তি যারা অত্র কলেজ প্রাঙ্গনে পদচারণা করেছেন, তাঁরা হলেন-

(১) সাবেক মহামান্য রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক এ.কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী।

(২) সাবেক মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া।

(৩) সাবেক মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী ড. এম ওসমান ফারুক।

(৪) সাবেক মাননীয় ডাক, তার ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী ব্যারিষ্টার মোঃ আমিনুল হক।

(৫) সাবেক মাননীয় যোগাযোগ মন্ত্রী ব্যারিষ্ট্রার নাজমুল হুদা।

(৬) সাবেক মাননীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রী ড. খন্দকার মোশারফ হোসেন।

(৭) সাবেক মাননীয় হুইপ মোঃ রেজাউল বারী ডিনা, (এম.পি)।

(৮) শিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির মাননীয় প্রাক্তন সভাপতি জনাবছামছুল আলম প্রামানিক (এম.পি)।

(৯) জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভাইস চ্যান্সেলর মরহুম ড.আফতাব আহমাদ।

(১০) প্রাক্তন ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক জনাব মোঃ রফিকুল ইসলাম, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া।

(১১) প্রাক্তন চেয়ারম্যান, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড রাজশাহী।

এছাড়া, একাধিক মাননীয় সাবেক সংসদ সদস্য, জেলা প্রশাসক- জয়পুরহাট, পুলিশ সুপার-

জয়পুরহাট এবং উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা মহোদয়গণ একাধিকবার কলেজ পদচারণা করেন।

© 2018 Frontier Theme